সফল হওয়ার উপায় / সফলতার গল্প / কিভাবে সফল হওয়া যায় ? || EduaidBD.com


১ ) সঠিক লক্ষ্য নির্ধারণ করা

সঠিক লক্ষ্য কথা দুটির দিকে একটু ভালো করে তাকিয়ে দেখুন । আপনাকে দিয়ে সবকিছু হবে না বা আপনি কিছু করতে পারেন না তার মানে এই নয় যে আপনাকে দিয়ে কিছুই হবে না । পরিশ্রম সৌভাগ্যের চাবিকাঠি কথাটি ঠিক । কিন্তু এই পরিশ্রম আবার কখনো কখনো পন্ডশ্রমে পরিণত হয় । আপনার লক্ষ্য কেমন হওয়া উচিত তা চোট্ট একটা গল্পের মাধ্যমে উপলদ্ধি করুন । একদা দুজন ব্যক্তিকে দুটি বন্দুক হাতে দিয়ে একটি পাখি শিকার করতে বলা হলো তারপর দুজন ব্যক্তিই পাখিটির দিকে বন্দুক তাক করল । ১ম ব্যক্তিটিকে জিঙ্গেস করা হল কি দেখতে পাচ্ছেন ? জবাবে লোকটি উত্তর দিল পাখিটিকে দেখতে পাচ্ছে । লোকটিকে আবার জিঙ্গেস করা হলো আর কি দেখতে পাচ্ছেন ? লোকটি দ্বিতীয় বার জবাবে বললেন গাছের ডাল ও কিছু লতাপাতা দেখতে পাচ্ছে । এবার আবোর লোকটিকে জিঙ্গেস করা হলো আর কি দেখতে পাচ্ছেন ? উত্তরে এবার লোকটি বললেন , বন্দুকের মাথার উপরের অংশে নীল আকাশ দেখা যাচ্ছে ।

ঠিক একইভাবে দ্বিতীয় লোকটিকে জিঙ্গেস করা হলো কি দেখতে পাচ্ছে ? লোকটি উত্তরে বললেন , “ পাখিটির মাথা দেখতে পাচ্ছে ” । লোকটিকে আবার জিঙ্গেস করা হলো আর কি দেখতে পাচ্ছেন ? দ্বিতীয়বার ও লোকটি বলল পাখিটির মাথা দেখতে পাচ্ছে কারণ তার কাছে পাখিটিই কাঙ্খিত ছিল । কি কিছু বুঝলেন এই চোট্ট গল্প থেকে ? তাই সফলতার জন্য প্রথমেই জীবনের সঠিক লক্ষ্য নির্ধারণ করে ফেলুন ।

২ ) সঠিক পরিকল্পনা গ্রহণ

আপনি যে বিষয়ে স্থির করেছেন তা অর্জন করতে আপনার প্রয়োজন সঠিক পরিকল্পনা গ্রহণ । কখন , কীভাবে , কেমন করে অধ্যয়নের মাধ্যমে আপনার লক্ষ্যে পৌঁছাতে সক্ষম হবেন তার একটি পরিকল্পনা তৈরি ফেলুন । আর এই পরিকল্পনা মত সামনে এগিয়ে যান । তাহলে দেখবেন কাঙ্খিত লক্ষ্য একদিন আপনার কাছে ধরা দিবেই ।

৩ ) ভিজুয়ালাইজ

নিজে জীবনে কি করতে চান সে বিষয়ে যদি স্বচ্ছ ধারণা থাকে তবেই আপনি সকল হতে পারবেন । সকালে ঘুম থেকে উঠেই আপনার পুরো দিনটা মনে করে ছকে তৈরি করে ফেলুন । কোন কাজটা আপনাকে লক্ষ্যে পোঁছাতে সাহায্য করবে তা মনে মনে ভেবে নিন । নিজেকে সফল ভাবতে শিখুন ।


৪ ) গুরুত্বপূর্ণ কাজ ফেলে রাখবেন না

আমরা কাজ ফেলে রাখি যতক্ষণ র্পযন্ত না সেটা আবশ্যক হয়ে পড়ে । প্রতিদিন কি করবেন তার একটা ছেক লিস্ট বানিয়ে ফেলুন । এটা আপনার লক্ষে পোঁছাতে ভালো কাজ দিবে ।


৫ ) নিজেকে মোটিভেট করুন


নিজের মধ্যে অলস পেয়ে বসতে দিবেন না । সবসময় নিজের লক্ষের কথা সামনে রাখুন । হাসির ছবি দেখুন , মন ভালো করে এমন কাজ করুন , রিলাক্স করুন । যাতে চাপ কমে এমন কাজ করুন ।


৬ ) সবকিছু আজকের বিষয় ভাবুন

ভবিষ্যত বা অতীত বলতে তেমন কিছু নেই , বিষয়ীটা আপেক্ষিক । সফলতার জন্য আপনাকে কাজ করতে হবে । যদি ভালো পরিশ্রম দিয়ে ভালো কাজ করেন তাহলে খুব ভালো একটা ভবিষ্যত অপেক্ষা করছে আপনার জন্যে । আর যদি আজকের দিনটিতে কোন কাজই না করেন তাহলে আগামীকাল বলবেন আমার অতীতটা তেমন ভালো কাটেনি । চেষ্টা করুন প্রতিদিন , প্রতি মূহুর্ত নিজের জন্য কাজ করতে ।


৭ ) স্বাস্থের প্রতি যত্নশীল হোন

সাস্থই সকল সুখের চাবিকাঠি । স্বাস্থ্য ভালো না থাকলে আপনি কোন কাজই ভালোভাবে শেষ করতে পারবেন না । তাই স্বাস্থকে গুরুত্ব দিন । শারিরীক ও মানসিক স্বাস্থ্য দু’টোই এক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ন । স্বাস্থের সাথে কিন্তু আমাদের অভ্যাসগুলো জড়িত । তাই সাফল্যের জন্য নিজের স্বাস্থের যত্ন নিতে হবে । নিয়মিত ব্যায়াম করতে হবে । সৃজনশীলতার বিকাশে নজর দিতে হবে । নেতিবাচক মানুষ ও পরিবেশ এড়িয়ে চলতে হবে ।


RELATED TOPIC :

CONTRACTS US

For our more information please contract us .
  • Gulzar Tower ( 4th ) floor , Chawkbazar , Chittagong .
  • 01787 - 36 92 12
  • info@eduaidbd.com
  • admin@eduaidbd.com
 bcs_preparation